ঢাকা, বাংলাদেশ বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন
কক্সবাজারে ভারী বৃষ্টিপাতে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত
কক্সবাজার প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১, ০৫:৩৯:৪৮ পিএম
  • / ৮২ বার খবরটি পড়া হয়েছে

টানা ভারী বৃষ্টিপাতে কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন উপজেলার অন্তত শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। লঘুচাপের কারণে সাগরে জোয়ারের পানি ৩ থেকে ৪ সেন্টমিটার উচ্চতায় প্রবাহিত হচ্ছে। গেল ২৪ ঘণ্টায় ১১৭ মিমি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে কক্সবাজার আবহাওয়া অফিস।

আজ বুধবার (২৮ জুলাই) ভোর থেকে টানা বর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। সঙ্গে বয়ে যাচ্ছে বাতাস। এর ফলে কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিলংজা, পিএমখালী, চৌফলদন্ডী, ঈদগাঁও, ভারুয়াখালী, পোকখালী গোমাতলী, ইসলামপুর, ইসলানাবাদ, রামু, পেকুয়া, টেকনাফ, চকরিয়া, উখিয়ার জালিয়াপাড়া, ইনানী, টেকনাফের সাবরাং, হ্নীলা, হোয়াইক্যং, মহেশখালী, কুতুবদিয়া উপজেলার নিম্নাঞ্চলের শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে জনদুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে।

টানা বৃষ্টিতে কক্সবাজার শহরের পাহাড়ী এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে
আনাসহ সচেতনতা অভিযান শুরু করেছে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশীদের নির্দেশে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা এই কার্যক্রম শুরু করেছেন৷

টেকনাফে টানা ২৪ ঘন্টা প্রবল বর্ষণ, পাহাড়ি ঢল ও নাফ নদীর অস্বাভাবিক জোয়ারে পানিবন্দী নিম্নাঞ্চলের ঘরবাড়ি ও মানুষ। প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উলুবনিয়া, হারাংগ্যা ঘোনা, মৌলভী পাড়া, ঝিমংখালী, নয়াবাজার, হ্নীলা ইউনিয়নের মৌলভী বাজার, ওয়াব্রাং. চৌধুরী পাড়া, সিকদার পাড়া, ফুলের ডেইল, রংগীখালী, লামার পাড়া, লেদা, জালিয়া পাড়া, নাটমোরা পাড়া, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নতূন পল্লান পাড়া, ড়েইল পাড়া, নাজির পাড়া, টেকনাফ পৌর এলাকার কলেজ পাড়া, জালিয়া পাড়া, ইসলামাবাদ, নাইটং পাড়া ও সাবরাং ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল এলাকাসহ কয়েক হাজার বসত বাড়ি, প্রধান সড়ক ও আঞ্চলিক সড়ক প্লাবিত হয়েছে এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ।

কক্সবাজারের রামুর গর্জনিয়া-কচ্ছপিয়া এলাকার নিম্ন অঞ্চল প্লাবিত হয়ে কয়েক হাজার মানুষ পানি বন্দী হয়ে পড়েছে। এ কারণে জনসাধারণের মাঝে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এতে কৃষকের শাক-সবজি নষ্ট ও অগ্রিম রোপিত ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার আশংকা করেছে সচেতন মহল।
উপর থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে বাঁকখালী নদীর পানি বিপদ সীমানার উপরদিয়ে অতিবাহিত হওয়ায় দুই ইউনিয়নের অধিকাংশ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। তিতার পাড়া, নতুন তিতার পাড়া, ডিককুল, চাঁকমারকাটা, মিয়াজিপাড়া,ফাক্রিকাটা, হাজির পাড়া,ক্যায়জর বিল,ডাক ভাংঙ্গাসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

বন্যায় প্লাবিত হয়ে গর্জনিয়া-কচ্ছপিয়ার প্রধান সড়ক গুলোতে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। অনেক মানুষ ইউনিয়ন পরিষদে,সাইক্লোন শেল্টারে নিরাপদ আশ্রয়ে রয়েছে।
রামু-নাইক্ষ্যংছড়ি সড়ক সহ গ্রামীন সড়কগুলো প্লাবিত হওয়ায় যান চলাচল বিচ্ছিন্ন রয়েছে।
রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা এসব এলাকার পানিবন্দী লোকজনের জন্য খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।

ইউনিয়নের ৮টি গ্রাম এখন পানিতে একাকার হয়ে গেছে। এসব গ্রামের ৫০০ পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

গর্জনিয়া ইউনিয়নের কৈয়াজরবিল, ডেইঙ্গারচর, ৮ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম বোমাংখিল, জুমছড়ি, ফকিরপাড়া সহ আরো অনেক গ্রামে মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

কক্সবাজারের ঈদগাঁও-ঈদগড় সড়কে ধস, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ঈদগাঁও উপজেলার সাথে রামু উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নের সরাসরি সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ঈদগাঁও নদীর প্রবল পাহাড়ী ঢলের তোড়ে বুধবার (২৮ জুলাই) সকাল ১০ টায় ঈদগাঁও-ঈদগড়-বাইশারী সড়কের ঈদগড় ইউনিয়নের পানের ছড়া পয়েন্টে প্রায় ১০০ ফুট সড়ক নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেলে এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়৷

চকরিয়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পানিতে প্লাবিত হয়েছে। মাতামুহুরী নদীর দুইকূল উপচিয়ে বিপদসীমার উপরে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ঝুকিপূর্ন হয়ে পড়েছে কোনাখালী ইউনিয়নের মধ্যম কোনাখালীর বাঁধটি। এভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে চকরিয়া উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন জনপ্রতিনিধিরা। বৃষ্টির কারণে পাহাড় ধসের আশঙ্কাও করছেন।চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়নের মধ্যে ৮টি ইউনিয়নের নিন্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এরমধ্যে সুরাজপুর-মানিকপুর, কাকারা, লক্ষ্যারচর, কৈয়ারবিল, বরইতলী, কোনাখালী ও ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের বেশকিছু এলাকায় বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। নতুন নতুন এলাকায় বন্যার পানি প্রবেশ করায় স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এদিকে বন্যার পানি বাড়ার কারণে ১৫-২০টি গ্রামে পানি প্রবেশ করেছে। ঘর বাড়িতে পানি প্রবেশ না করলেও অভ্যন্তরীণ রাস্তা গুলো ১ থেকে ২ ফুট পানির নিচে রয়েছে। ফলে যোগাযোগ ক্ষেত্রে মারাত্মক দূর্ভোগে পড়েছে এলাকাবাসী। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে বেশকিছু গ্রামের লোক।

স্থানীয়দের অভিযোগ, পাউবোর বর্ষা প্রকল্প নিয়ে এখানে হরিলুট চলেছে। সরকারি কোটি টাকার প্রকল্পের সুফল জনগণ আসলেই পায়নি! তবে, সুফল পেয়েছে পাউবোর অসাধু কর্মকর্তা, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান , স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ রাজনৈতিক নেতারা। কাজ শেষ না হতেই চকরিয়ায় মাতামুহুরী নদীর কন্যারকুম বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

মহেশখালীতে প্রবল বর্ষণে সৃষ্ট পাহাড়ি ঢলে শতাধিক বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। ঢলের পানিতে তলিয়ে দোকানপাট। রাস্তাঘাট ভেঙ্গে গিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে গ্রামীণ অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ। উপজেলার হোয়ানক, কালারমারছড়া শাপলাপুর ইউনিয়নে পাহাড়ি ঢলে সৃষ্ট বন্যায় এই ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করছেন মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক। হোয়ানক ইউনিয়নের কালাগাজির পাড়া ও হরিয়ার ছড়া গ্রামে। দুটি গ্রামেই শতাধিক বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে।

কক্সবাজারের ঈদগাঁও নদীর পানি অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গিয়ে বিস্তীর্ণ এলাকা ব্যাপকভাবে প্লাবিত হয়েছে। টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলের কারনে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ন অবস্থায় রয়েছে বেড়িবাঁধের বেশ কয়েকটি পয়েন্ট। তম্মধ্যে জালালাবাদের মনজুর মৌলভীর দোকান সংলগ্ন পয়েন্ট, মিয়াজীপাড়া পয়েন্ট, ছাতিপাড়া পয়েন্ট, ইসলামাবাদ ইউনিয়নের গার্লস স্কুল পয়েন্ট, ওয়াহেদের পাড়া পয়েন্ট, ঈদগাঁও ইউনিয়নের ভোমরিয়াঘোনা পয়েন্ট অতি ঝুঁকিপূর্ন অবস্থায় রয়েছে।

বৃষ্টির পানি এবং ঈদগাঁও হাইস্কুল পয়েন্ট থেকে ঈদগাঁও নদীর পানি অনুপ্রবেশ করে ঈদগাঁও বাজারের ডিসিসড়কসহ অলিগলিসমুহ কোমরসমান পানির নিচে তলিয়ে গেছে। পানি ঢুকে পড়েছে বাজারের কয়েকশ ব্যবসা প্রতিষ্টান ও পার্শ্ববর্তী আবাসিক এলাকায়। ইতোমধ্যেই প্লাবিত হয়ে পড়েছে জালালাবাদ ইউনিয়নের মাছুয়াপাড়া, বাজারপাড়া, বাঁশঘাটা, তেলীপাড়া, দঃ এবং পূর্বলরাবাগ, ছাতিপাড়া, মিয়াজীপাড়া, ঈদগাঁও ইউনিয়নের ভোমরিয়াঘোনা, মাইজপাড়া, কানিয়াছড়া, জাগিরপাড়া, সাতঘরিয়াপাড়া, দরগাহপাড়া, লালসরিপাড়া, ইসলামাবাদ ইউনিয়নের ইউছুফেরখীল, ওয়াহেদের পাড়া, খোদাইবাড়ী, রাবার ড্যাম, চরপাড়া, পোকখালী ইউনিয়নের মধ্যম পোকখালী এলাকার নাছির মৌলভীর বাড়ী সংলগ্ন বেড়িবাঁধের ২শ ফুটেরও অধিক অংশ ভেঙ্গে গিয়ে ব্যাপক এলাকা প্লাবিত হয়েছে বলে জানান ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমদ।

এছাড়া ওই ইউনিয়নের পরিষদ সংলগ্ন প্রধান সড়কটিও ২/৩ ফুট পানির নিচে নিমজ্জিত রয়েছে।
নব গঠিত ঈদগাঁও উপজেলার নিম্নাঞ্চলের বিভিন্ন প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল। বেড়িবাঁধ মেরামত ও নদী ভাঙ্গন রোধ করতে পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কাছে জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়ার আহবান জানান তিনি।

জেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, উপজেলাগুলোতে বন্যার আশঙ্কা দেখা দেয়ায় বিভিন্ন ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে খোঁজখবর নেওয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
কক্সবাজার আবহাওয়া দপ্তরের সহকারি আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান জানিয়েছেন, বঙ্গোপসাগরে বায়ুচাপের কারণে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। কক্সবাজার উপকূলে যে সমস্ত নৌযান চলাচল করে সেসব নৌযানকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদে থেকে মাছ শিকারের কথা বলা হচ্ছে। গেল ২৪ ঘণ্টায় কক্সবাজারে ১১৭ মিমি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও ভারী থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে।

উল্লেখ্য, কক্সবাজারে ভারী বৃষ্টিপাতে গত দুইদিনে শরণার্থী শিবিরসহ উখিয়া, টেকনাফ ও মহেশখালীতে পাহাড় ধস, পানিতে ভেসে গিয়ে আর মাটির দেয়াল চাপায় ১৪ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। তাদের মধ্যে টেকনাফে ৬ জন, মহেশখালীতে ২ জন ও রোহিঙ্গা শিবিরে ৬ জন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই মুহূর্তে

টাঙ্গাইল দুই লক্ষাধিক টাকার নিষিদ্ধ চায়না জাল ধ্বংস
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
দৌলতখান হাসপাতালে এক্স-রে মেশিনের কার্যক্রম বন্ধ ১৩ বছর
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
সারাদেশে পণ্যবাহী পরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতি
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
ঘরে বসে বিএনপি কৃষক, শ্রমিকদের জন্য মায়াকান্না করে: ওবায়দুল কাদের
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
লালমনিরহাটে পুনাকের উদ্যোগে নকশিকাঁথা সেলাই প্রশিক্ষণ
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
কক্সবাজারে রেলপথ মন্ত্রী
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
নড়াইলে মাদক মামলায় এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
স্ত্রী হত্যার দায়ে নীলফামারীতে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
নোয়াখালীতে ইয়াবাসহ পুলিশ কনস্টেবল গ্রেফতার
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
এটিএম’র লক ভেঙ্গে ২৪ লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই, গ্রেফতার ৩
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
খবরের আর্কাইভ