ঢাকা, বাংলাদেশ শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন
চাকরিজীবী লীগ ও খালেদার সঙ্গে ছবি নিয়ে যা বললেন হেলেনা
কলকাতা টিভি ডেস্ক:
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৫ জুলাই, ২০২১, ১০:৩২:১৪ পিএম
  • / ৯৬ বার খবরটি পড়া হয়েছে

‘বাংলাদেশ আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ’ নামে একটি সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ততার কারণে সম্প্রতি আলোচিত হন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য হেলেনা জাহাঙ্গীর। এরই মধ্যে শনিবার (২৫ জুলাই) আলোচিত এই নেত্রীকে উপকমিটি থেকে অব্যাহতি দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। দলটির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

এরই ঘটনার মধ্যেই সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে হেলেনা জাহাঙ্গীরের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাখ্যা দিয়েছেন তিনি।

ফেসবুকে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, ‘‘ব্যবহার বংশের পরিচয়…. আমাদের দেশের কিছু মানুষ রাজনীতি করে নিজের দেমাগ ফুটিয়ে তুলতে।নিজের দলের সাথে নিজের কমিটির মেম্বারদের সাথে নিজেরাই পেছনে লেগে থাকে।কি অসভ্যতা আল্লাহ মাফ করুন। ছিঃছিঃ কি জঘন্য মানসিকতা।আমরা এগুলো দেখে বড় হই নাই। ঘাত-প্রতিঘাত পার করে আজকের এই অবস্থান। পেছনে যারা করে তারা কখনো উঠতে পারে না। রাজনীতি করলে মনে করে সে নিজেই রাজা তার ওপরে যে কত রাজা আছে সেটাই ভুলে যায়। কিছু কথা না বলেই নয়। সাবেক চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে কি আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবি নেই? তাতে কি কিছু বুঝা যায়? আমারা কি অশিক্ষিত যারা এই ভুলগুলো করছি। সবাইকে জানানোর জন্যেই বলছি, আমি আমার নেতা ও নেত্রীর কথার বাইরে এক পাও আগাইনা কাজও করি না। ওনাদের পরামর্শ নিয়েই সব কাজ করি। যারা আমাকে নিয়ে লিখেছেন তারা আমাদের আওয়ামী লীগের। আমার বোধগম্য হয় না কিভাবে তারা ঘরের মানুষের ঘরের মানুষ লেগে থাকে। যাইহোক আল্লাহ হেদায়েত করুন।আবারও বলছি এর আগেও বলেছি খালেদা জিয়া ও অনান্যদের সাথে যে ছবিগুলো ভাইরাল হচ্ছে সেটা বিয়েতে এসেছিল তখন তোলা ছবি এবং এ ছবিগুলো আমি নিজেই ফেসবুকে দিয়েছিলাম।আমার কিছুই গোপনীয়তা নেই।আর আমি একজন প্রকৃত ১০০% ব্যবসায়ী ও সরকারের একজন কমার্সিয়াল ইমপোর্টেন্ট পার্সন CIP…সেখান থেকে রাজনীতিতে এসেছি। বঙ্গবন্ধুর সৈনিক ছোট বেলা থেকেই। যারা পেছনে কথা বলে তারা আমার কাছে আসতে পারে না বলেই এভাবে লেগে থাকে। আমার চেয়ার আমাকে কেউ দেয় নাই। আমার যোগ্যতায় ও আমার কঠোর পরিশ্রমের ফসল আমার এখানে আসা। পেছনে যারা কথা বলে তাদের কোনো অস্তিত্ব নেই বলেই বলে। যাদের যোগ্যতা নেই, তারাই মানুষের পেছনে লেগে থাকে, মানুষ সামাজিক জীব সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই আমাদেরকে বিভিন্ন আচার অনুষ্ঠানে যেতে হয়, একটা ছবি মানুষের রাজনৈতিক পরিচয় বহন করে না।’’

‘চাকরিজীবী লীগ’ নামে সংগঠনটির পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, তারা দুই-তিন বছর ধরেই আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন হিসেবে অনুমোদন পাওয়ার চেষ্টা করছে। তবে আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, সংগঠনটির সঙ্গে আওয়ামী লীগের কোনো সম্পর্ক নেই। সম্প্রতি ফেসবুকে ‘বাংলাদেশ আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ’ নামের একটি সংগঠনের সভাপতি হিসেবে হেলেনা জাহাঙ্গীরের নাম আসে। সেই কারণেই তাকে উপকমিটির পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক।

এ বিষয়ে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীর গণমাধ্যমকে জানান, চাকরিজীবী লীগের সঙ্গে তিনি জড়িত নন। বরং তিনি সংগঠনটির কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করছেন। দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সবুজ সংকেত না পেলে তিনি এই সংগঠনের পদ গ্রহণ করবেন না।

শনিবার (২৪ জুলাই) সন্ধ্যায় চাকরিজীবী লীগ সম্পর্কে তিনি বলেন, এটা আমি খুলিনি। এই প্রতিষ্ঠান চার বছর আগের। এটা মাহবুব সাহেব খুলেছিলেন। আমাকে ওরা প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। আমি বলেছি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ছাড়া আমি কিছু করতে পারবো না। তবে আমি আপনাদেরকে এনালাইসিস করব। গত তিন মাস ধরে আমি উনাদেরকে দেখছি। তবে উনাদের সংগঠন অনেক বড়। ৬৪ জেলায় কমিটি আছে। থানা কমিটি আছে, জেলা কমিটি আছে, অনেক সদস্য আছে দেখলাম। এখানে অবসরপ্রাপ্ত অনেক আর্মি অফিসারও আছেন দেখলাম। বর্তমান চাকরিজীবী আছেন, ব্যাংকের আছেন।

করোনার কারণে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের বিষয়টি অবগত করতে পারেননি জানিয়ে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, চুমকি আপুর সঙ্গে দেখা করব, পারি নাই। কাদের ভাইয়ের সঙ্গে দেখা করতে পারি নাই, গোলাপ ভাইয়ের সঙ্গে দেখা করব, তাইও প্যানডামিকের জন্য পারিনি। আমি তাদেরকে (চাকরিজীবী লীগের নেতাদের) বলেছি, কমিটির পেপারগুলো একত্রিত করে আমাকে দেয়ার জন্য। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতে পৌঁছাব বা গণভবনে পৌঁছে দেব। যদি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন যে, হেলেনা তুমি থাকো। তারপরে আমি এটা করব। আর করার আগে সংবাদ সম্মেলন করে তো আমি জানাব।

তিনি বলেন, আমি গোলাপ ভাইয়ের কাছে যাব, আমি কাদের ভাইয়ের কাছে যাব, আমি হানিফ ভাইয়ের কাছে যাব, বিপ্লব বড়ুয়া ভাইয়ের কাছে যাব লকডাউন শেষে। আমি কারো পরামর্শ ছাড়া কাজ করি না। তারপর উনারা কারো না কারোর মাধ্যমে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি বলেন, না ঠিক আছে করুক, তাহলে আমি করব।

এদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার ভাইরাল হওয়া ছবির বিষয়ে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, ওটা তো ক্লিয়ারেন্স দিয়েছি। আমি আমার স্টেটমেন্ট দিয়েছি যে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীরও ছবি আছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে। ওনার বিয়ের সময় সম্ভবত। আশরাফুল ভাইয়ের ফেসবুক পেজ থেকে পেয়েছিলাম। মওদুদ আহমেদ সাহেবের ছেলের বিয়েতে গিয়েছিলাম। অনেক দিন আগের ঘটনা। এই ছবিটা আমি নিজেই পোস্ট করেছিলাম। এটা কারো উঠানো ছবি না। আমার নিজের মোবাইলে উঠানো ছবি।

রোববার (২৫ জুলাই) নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক স্ট্যাটাসে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, আমি দলকে ভালোবাসি, আমি দলের সকল সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই, আমি যদি কোন ভুল করে থাকি তাহলে নেত্রী আমাকে সাজা দিবেন এবং পরক্ষণে আগলে নিবেন আশা করি আমরা কেউই ভুলের উর্ধ্বে নই তবে আমি এটা বিশ্বাস করি আমার সকল কার্যক্রম ছিল দলকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে, কিন্তু কিছু কুচক্রী মহল আমার এই কার্যক্রমে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে, তবে মনে রাখবেন সূর্য অস্ত গিয়েছে সঠিক সময়ে সূর্যের উদয় হবে ইনশাআল্লাহ।

প্রসঙ্গত, জয়যাত্রা গ্রুপের কর্ণধার হেলেনা জাহাঙ্গীর নিজেকে আইপি টিভি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি হিসেবেও পরিচয় দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই মুহূর্তে

স্বতন্ত্র কোম্পানীর ভর্তুকির জন্য চীনকে শাস্তি দিতে প্রস্তুত হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
কুড়িগ্রামে কবরে ৪ মাস পরেও নারীর লাশ অক্ষত
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
৫র্ম শ্রেণীর শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের চেষ্টা, আটক ১
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
দোহারে পরিচ্ছন্ন কর্মীর হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
ভারতীয় কারিগরি ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা দিবস পালিত
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
বাংলা‌দেশ-ভার‌ত সম্পর্ক র‌ক্তের বন্ধ‌নের, সহ‌যো‌গিতা আগামী‌তেও থাকবে
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
৮নং দুর্গাপুর ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান আছিফ রহমান শাহীন
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
বঙ্গবন্ধু, আওয়ামী লীগ, কৃষকরত্ন শেখ হাসিনা একই সূত্রে গাঁথা
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
ইভ্যালির সিইও রাসেল ও তার স্ত্রী গ্রেফতার
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
খবরের আর্কাইভ