ঢাকা, বাংলাদেশ শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন
নরেন্দ্র মোদিকে বরণ করতে ঢাকায় উৎসবের আমেজ
নাসির আহমাদ রাসেল, ঢাকা
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ, ২০২১, ০৭:৩৮:৩৪ পিএম
  • / ১৬২ বার খবরটি পড়া হয়েছে

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বরণ করতে প্রস্তুত বাংলাদেশ। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশী ও বন্ধুপ্রতীম রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রীর এই সফর ঘিরে ঢাকাকে সাজানো হয়েছে বর্ণিল সাজে।
সড়কে সড়কে উড়ছে ভারত- বাংলাদেশের পতাকা। শোভা পাচ্ছে নরেন্দ্র মোদি-শেখ হাসিনার ছবি সম্বলিত ব্যানার, ফেস্টুন। স্থাপনাও সেজেছে রঙ্গিন সাজে।

নরেন্দ্র মোদিকে স্বাগত জানাতে মোড়ে মোড়ে বসানো হয়েছে তোরণ।লেখা হয়েছে, ‘স্বাগতম ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি’। সড়কের সৌন্দর্যবর্ধক ভাস্কর্যগুলোতেও ফুলের সঙ্গে শোভা পাচ্ছে মোদির ছবি। এক কথায় বললে নরেন্দ্র মোদির আগমনকে ঘিরে ঢাকায় এখন উৎসবের আমেজ। শুধু ঢাকাতেই নয় উৎসব ছড়িয়ে পড়েছে বাংলাদেশের দুই জেলা সাতক্ষীরা আর গোপালগঞ্জেও।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফর ঘিরে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেয়া হয়েছে গোটা বাংলাদেশকে। বাড়ানো হয়েছে ব্যাপক গোয়েন্দা নজরদারি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টহল।
মহামারি করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর এই প্রথমবারের মতো বিদেশ সফর করছেন নরেন্দ্র মোদি। যে কারণে স্বাস্থ্যবিধি মানতেও নেয়া হয়েছে জোরালো পদক্ষেপ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দুদিনের বাংলাদেশ সফরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধ, ওড়াকান্দিতে মতুয়া সম্প্রদায়ের তীর্থস্থান ও সাতক্ষীরায় যশোরেশ্বরী মন্দির পরিদর্শন করবেন মোদি।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে ভারতসহ বিভিন্ন রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের আমন্ত্রণ জানিয়েছে বাংলাদেশ। ইতোমধ্যে বিভিন্ন দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানরা বাংলাদেশে সফর করেছেন। করোনার কারণে অনেক দেশের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত না হয়ে পাঠিয়েছেন ভিডিও বার্তা। ১৭ থেকে ২৬ মার্চ ১০ দিনের অনুষ্ঠানে এর আগে বিদেশি নেতারা অংশ নিয়েছেন। শেষ দিন ২৬ মার্চ অংশ নেবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সহযোগীসহ বন্ধুপ্রতীম প্রতিবেশী রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় নরেন্দ্র মোদির সফরকে বিশেষভাবেই মূল্যায়ন করছে বাংলাদেশ। সফরসূচি অনুযায়ী শুক্রবার সকালে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবেন নরেন্দ্র মোদি। তাকে অভ্যর্থনা জানাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মোদিকে লাল গালিচা সংবর্ধনা এবং গার্ড অব অনার দেয়া হবে।

এদিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী জাতীয় স্মৃতিসৌধে মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানাবেন। ধানমন্ডি-৩২ এ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতেও শ্রদ্ধা জানাবেন এবং বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর পরিদর্শন করবেন। বিকালে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

২৭ মার্চ শনিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধি ও কাশিয়ানী উপজেলার মতুয়া সম্প্রদায়ের তীর্থস্থান শ্রীধাম ওড়াকান্দি ঠাকুরবাড়ি পরিদর্শন করবেন। ইতোমধ্যে সেখানেও তাকে স্বাগত জানাতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। শ্রীধাম ওড়াকান্দিতে উলু ও শঙ্খধ্বনি দিয়ে এবং ডঙ্কা ও কাঁসা বাজিয়ে মতুয়া ধর্মাবলম্বীরা নরেন্দ্র মোদিকে বরণ করবেন।

একই দিন সাতক্ষীরায় হিন্দু মন্দিরও পরিদর্শন করবেন মোদি। এছাড়া বাংলাদেশ সফরে তিনি ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিরোধী রাজনৈতিক দল বিএনপিসহ কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে জানা গেছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এ সফরে বাংলাদেশের সঙ্গে অনেকগুলো চুক্তি সই হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে বিনিয়োগ, বাণিজ্য এবং পারস্পরিক সহযোগিতা অন্যতম। এছাড়া তিস্তা চুক্তি নিয়ে ভারত দ্রুত একটি সিদ্ধান্তে আসবে বলেও জানা গেছে। এমনটাই আভাস দিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা।

নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে সফর উপলক্ষে দিল্লিতে এক সংবাদ সম্মেলনে শ্রিংলা বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর এ সফরটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সফরে ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি এবং দুই দেশের নাগরিকদের যোগাযোগ বাড়ানোর বিষয়টি গুরুত্ব পাবে। ২৭ তারিখ রাতে বাংলাদেশ ত্যাগ করবেন নরেন্দ্র মোদি।

ডঙ্কা-কাঁসা বাজিয়ে নরেন্দ্র মোদিকে বরণ করতে প্রস্তুত ওড়াকান্দি

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর সফরের মধ্য দিয়ে কোনো বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধানের এটি হবে গোপালগঞ্জে প্রথম সফর। ২৭ মার্চ শনিবার তিনি গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধ ও কাশিয়ানী উপজেলার মতুয়া সম্প্রদায়ের তীর্থস্থান শ্রীধাম ওড়াকান্দি ঠাকুরবাড়ি পরিদর্শন করবেন নরেন্দ্র মোদি।

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে প্রশাসন। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে মতুয়া সম্প্রদায়ের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা রিবাজ করছে। মোদিকে বরণ করতে চলছে নানান আয়োজন। শ্রীধাম ওড়াকান্দিতে উলু ও শঙ্খধ্বনি দিয়ে এবং ডঙ্কা ও কাঁসা বাজিয়ে মতুয়া ধর্মাবলম্বীরা নরেন্দ্র মোদিকে বরণ করবেন বলে জানা গেছে।

শনিবার সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে নরেন্দ্র মোদি প্রথমে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাবেন এর পর সমাধিসৌধ কমপ্লেক্সে তিনি একটি বৃক্ষের চারা রোপণ ও পরিদর্শন বইয়ে স্বাক্ষর করবেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে টুঙ্গিপাড়া থেকে তিনি মতুয়া সম্প্রদায়ের তীর্থভূমি কাশিয়ানীর ওড়াকান্দি ঠাকুরবাড়ি যাবেন। সেখানে তিনি হরিচাঁদ ও গুরুচাঁদ মন্দিরে পূজা অর্চনা ও মতুয়া নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন।

টুঙ্গিপাড়া ও ওড়াকান্দিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তৎপর রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। টুঙ্গিপাড়া সমাধিসৌধ ও ওড়াকান্দি ঠাকুরবাড়িসহ আশপাশের এলাকায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তাবেষ্টনী তৈরি করা হয়েছে। গোটা এলাকা ক্লোজসার্কিট ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফর ঘিরে ওড়াকান্দি ঠাকুরবাড়িতে জরুরি ভিত্তিতে চারটি হেলিপ্যাড, ঠাকুরবাড়ির অভ্যন্তরে পাঁচ মিটার এইচবিবি সড়ক, ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের তিলছাড়া থেকে ওড়াকান্দি ঠাকুরবাড়ি পর্যন্ত অন্তত আট কিলোমিটার পাকা সড়ক সংস্কার হয়েছে। এ ছাড়া রাহুথড় এলাকা থেকে ঠাকুরবাড়ি প্রবেশের জন্য ছয় কিলোমিটার পাকা সড়কের সংস্কার সম্পন্ন করা হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর আগমন কেন্দ্র করে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধ কমপ্লেক্সকে ধুয়ে-মুছে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। রঙের ছটায় বদলে গেছে সমাধিসৌধ কমপ্লেক্সের আদল।

নরেন্দ্র মোদির সফর ঘিরে সাতক্ষীরায় সব ধরনের নিরাপত্তার প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। হ্যালিপ্যাড থেকে যশোরেশ্বরী কালিমন্দির পর্যন্ত সড়কের দুই ধারে সৌন্দর্য বর্ধন করা হয়েছে। এছাড়া যশোরেশ্বরী কালীমন্দিরসহ সংস্কার করা হয়েছে কালিমন্দির সংলগ্ন সড়ক। নির্মাণ করা হয়েছে ৪টি হ্যালিপ্যাড। এছাড়া, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশ্রামের বিষয়টিও মাথায় রেখে স্থানীয় ভূমি অফিসকেও সাজানো হয়েছে নতুন আঙ্গিকে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সাতক্ষীরা সফর উপলক্ষে সাতক্ষীরা টু শ্যামনগরগামী মহাসড়কে ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট, রোবাস্ট পেট্রোলিং, ফিঙ্গার প্রিন্টের মাধ্যমে তথ্য যাচাই এবং বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের পক্ষ থেকে ওই মন্দির এলাকায় নিরাপত্তার ব্যাপারে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়াও পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাবের গোয়েন্দা কার্যক্রম বৃদ্ধি করা হয়েছে। নিরাপত্তার বিষয়টি দেখছেন এসএসএফ।

যশোরেশ্বরী কালি মন্দিরে পূজা দিতে শনিবার (২৭ মার্চ) সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে শ্যামনগর এ. সোবাহান মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে নবনির্মিত হ্যালিপ্যাডে বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারযোগে অবতরণ করবেন মোদি।

এরপর তিনি সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে যশোরোশ্বরী দেবি মন্দির পূজা দেওয়ার জন্য প্রবেশ করবেন। সেখানে তিনি মাত্র ২০ মিনিট থাকার পর ১০টা ১০ মিনিটে মন্দির ত্যাগ করবেন। এরপর তিনি ১০টা ১৫ মিনিটে হেলিকপ্টারযোগে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই মুহূর্তে

স্বতন্ত্র কোম্পানীর ভর্তুকির জন্য চীনকে শাস্তি দিতে প্রস্তুত হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
কুড়িগ্রামে কবরে ৪ মাস পরেও নারীর লাশ অক্ষত
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
৫র্ম শ্রেণীর শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের চেষ্টা, আটক ১
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
দোহারে পরিচ্ছন্ন কর্মীর হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
ভারতীয় কারিগরি ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা দিবস পালিত
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
বাংলা‌দেশ-ভার‌ত সম্পর্ক র‌ক্তের বন্ধ‌নের, সহ‌যো‌গিতা আগামী‌তেও থাকবে
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
৮নং দুর্গাপুর ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান আছিফ রহমান শাহীন
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
বঙ্গবন্ধু, আওয়ামী লীগ, কৃষকরত্ন শেখ হাসিনা একই সূত্রে গাঁথা
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
ইভ্যালির সিইও রাসেল ও তার স্ত্রী গ্রেফতার
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
খবরের আর্কাইভ