ঢাকা, বাংলাদেশ বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মালিকদের অনুরোধ
কলকাতা টিভি ডেস্ক:
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই, ২০২১, ০৩:১৮:৫০ পিএম
  • / ৮৮ বার খবরটি পড়া হয়েছে

চলমান করোনা বিধিনিষেধের মধ্যে উৎপাদনমুখী সব শিল্প প্রতিষ্ঠান দ্রুত খুলে দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শিল্প উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীদের শীর্ষ নেতারা।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সচিবালয় মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সঙ্গে বৈঠকে এ দাবি জানিয়েছেন তারা।

বৈঠকে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন, বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বিকেএমইএ, বিটিএমএ, ঢাকা চেম্বারসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে যে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তা দ্রুত সময়ে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শক্রমে পরবর্তী সিদ্ধান্ত আসবে।

বৈঠক শেষে বিজিএমইএ সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন জানান, বৈঠকে সব ধরনের শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। যেসব শ্রমিক ঢাকায় আছেন, তাদের নিয়ে শিল্প প্রতিষ্ঠান চালানোর প্রস্তাব দিয়েছে বিজেএমইএ। শ্রমিকদের ঢাকা ফিরতে কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।

তিনি জানান, সরকার শিল্প প্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দিলেই শ্রমিকদের ঢাকায় ফিরতে বলা হবে।

বিকেএমইএর সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম বলেন, কারখানা কবে খুলবে তার নির্দিষ্ট তারিখ আমাদেরকে বলা হয়নি, তবে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে দ্রুত কল কারখানা খুলে দেওয়ার জন্য আমরা প্রস্তাব করেছি। এটি আমাদের আগের প্রস্তাবে নতুন করে আবার বলা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিবের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে বিষয়টি গুরুত্ব সঙ্গে দেখা হচ্ছে জানান মোহাম্মদ হাতেম।

বৈঠকের পর এ বিষয়ে কোনো ব্রিফ করেননি মন্ত্রিপরিষদ সচিব। তবে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, মন্ত্রিপরিষদ সচিব বৈঠকে বিজিএমই নেতৃবৃন্দকে বলেছেন, এ সংক্রান্ত কোর কমিটি গত মঙ্গলবার একটি বৈঠক করেছেন। সেখানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রিফ করে জানিয়েছেন যে ৫ আগস্টের আগে শিল্প কারখানা খোলার অনুরোধ রাখা তাদের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই মন্তব্যই বৈঠকে পুনর্ব্যক্ত করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গত ২৩ জুলাই থেকে কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে; যা আগামী ৫ আগস্ট দিনগত রাত ১২টা পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধে সব ধরনের শিল্পকারখানা বন্ধ থাকবে। তবে গার্মেন্টস ব্যবসায়ীদের দাবি, এতে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক খাত বড় ধরনের ক্ষতির মুখে পড়ছে।

এর আগে গত ১৩ জুলাই দুপুরে বিধিনিষেধ সংক্রান্ত জারি করা প্রজ্ঞাপনে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ জানায়, বিধিনিষেধে সব ধরনের শিল্প-কলকারখানা বন্ধ থাকবে। যদিও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকেই পোশাক (গার্মেন্টস) কারখানা খোলা রাখার ব্যাপারে ব্যবসায়ীরা সরকারের বিভিন্ন মহলে দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

গার্মেন্টস কারখানা খোলা রাখার ব্যাপারে তারা প্রধানমন্ত্রীর কাছেও চিঠি দেন। প্রধানমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে ব্যবসায়ী নেতারা বলেন, পোশাক শিল্পের শ্রমিকেরা নিয়ম-শৃঙ্খলার মধ্যে কাজ করেন। দিনের অধিকাংশ সময় (মধ্যাহ্ন বিরতিসহ ১১ ঘণ্টা) কর্মক্ষেত্রে সুশৃঙ্খল ও স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশে থাকেন তারা। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ঈদের ছুটিসহ ১৮-২০ দিন কারখানা বন্ধ থাকলে গ্রীষ্ম, বড়দিন ও শীতের ক্রয়াদেশ হাতছাড়া হয়ে যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই মুহূর্তে

টাঙ্গাইল দুই লক্ষাধিক টাকার নিষিদ্ধ চায়না জাল ধ্বংস
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
দৌলতখান হাসপাতালে এক্স-রে মেশিনের কার্যক্রম বন্ধ ১৩ বছর
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
সারাদেশে পণ্যবাহী পরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতি
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
ঘরে বসে বিএনপি কৃষক, শ্রমিকদের জন্য মায়াকান্না করে: ওবায়দুল কাদের
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
লালমনিরহাটে পুনাকের উদ্যোগে নকশিকাঁথা সেলাই প্রশিক্ষণ
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
কক্সবাজারে রেলপথ মন্ত্রী
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
নড়াইলে মাদক মামলায় এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
স্ত্রী হত্যার দায়ে নীলফামারীতে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
নোয়াখালীতে ইয়াবাসহ পুলিশ কনস্টেবল গ্রেফতার
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
এটিএম’র লক ভেঙ্গে ২৪ লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই, গ্রেফতার ৩
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
খবরের আর্কাইভ